শিক্ষা

বিষয় ৮: পবিত্র আত্মা

[8-8] < যোহন ৭:৩৭-৩৮ > কার মাধ্যমে পবিত্র আত্মার জীবন্ত জল প্রবাহিত হয়?

< যোহন ৭:৩৭-৩৮ >
“শেষদিন, পবের্বর প্রথম দিন যীশু দাঁড়াইয়া উচ্চৈঃস্বরে কহিলেন, ‘কেহ যদি তৃষ্ণার্ত হয়, তবে আমার কাছে আসিয়া পান করুক।যে আমাতে বিশ্বাস করে, শাস্ত্রে যেমন বলে, তাহার অন্তর হইতে জীবন্ত জলের নদী বহিবে।”
 
 
কে পবিত্র আত্মার জীবন্ত
জল পান করতে পারে?
যারা যীশুর সুন্দর সুসমাচার,
বাপ্তিস্ম ও তাঁর ক্রুশীয় রক্তে
বিশ্বাস করে
 
 পবিত্র আত্মার জীবন্ত জল তাদের অন্তরে প্রবাহিত হয় যারা সুন্দর সুসমাচারে বিশ্বাস করে। যাহোন ৭:৩৮ পদে আছে, “যে আমাতে বিশ্বাস করে, শাস্ত্রে যেমন বলে, তাহার অন্তর হইতে জীবন জলেন নদী বহিবে।” এর অর্থ এই যে, তাদের জন্য সত্য পরিত্রাণ ও পাপের ক্ষমা আছে যারা সুন্দর সুসমাচারে বিশ্বাস করে যা ঈশ্বর আমাদিগকে দিয়েছেন।
 কখন অন্তরে বাসকারী পবিত্র আত্মা আসন গ্রহণ করেন? অন্তরে বাসকারী পবিত্র আত্মা পাওয়া যেতে পারে যখন কেহ সত্য সুসমাচার শ্রবণ ও বিশ্বাস করে, যা বলে যে, যোহনের দ্বারা তাঁর বাপ্তিস্মের মাধ্যমে যীশু খ্রীষ্ট জগতের সমস্ত পাপ তুলে নিয়েছেন। তখন কেহ পবিত্র আত্মার জীবন্ত জল পান করতে পারে। যারা বিশ্বাস করে সুন্দর সুসমাচারে অন্তরে বাসকারী পবিত্র আত্মা আছে, এবং আধ্যাত্মিক জীবন্ত জলের বাস্তব অনুভুতি নূতনভাবে উপচিয়ে পড়ে এবং সবসময় তাদের শুদ্ধ হৃদয় ভিজিয়ে দেয়, তারা প্রচার করে অথবা ঈশ্বরের বাক্য শ্রবণ করে।
 পবিত্র আত্মার জীবন জল তাদের অন্তরে প্রবাহিত হয় যারা জল ও আত্মার সুসমাচারে বিশ্বাস করে, যা বলে যে, প্রভু সমস্ত পাপীদেরকে তাদের সমস্ত পাপ থেকে রক্ষা করার জন্য এই জগতে এসেছিলেন। পবিত্র আত্মা সত্যময় যা জল ও আত্মার সুসমাচার থেকে পৃথক করা যায় না এবং যে লোকেরা ঈশ্বরের বাক্যে বিশ্বাস করে তাদের বিশ্রাম দেয়। যে কেহ পবিত্র আত্মার জীবন্ত জল পান করতে ইচ্ছা করে সে অবশ্যই যীশুর সুন্দর সুসমাচারে, বাপ্তিস্মে ও তাঁর ক্রুশীয় রক্তে বিশ্বাস করে তার সমস্ত পাপের ক্ষমা পেয়েছে। যারা ঈশ্বরের বাক্যে বিশ্বাস করে তাদের অন্তরে এই পবিত্র আত্মার জীবন্ত জল থাকে। যে লোকেরা জল ও আত্মার সুসমাচারে বিশ্বাস করে তাদের পবিত্র আত্মার জীবন্ত জল আছে, যা নদীর মত প্রবাহিত তাদের অন্তরের মধ্য দিয়ে জলস্রোত প্রবাহিত হয়। এমনকি এই মুহূর্তে, যারা জল ও রক্তের সুন্দর সুসমাচারে বিশ্বাস দ্বারা তাদের পাপের ক্ষমা পেয়েছে তাদের অন্তরে বসন্তের জলের মত পবিত্র আত্মার জীবন্ত জল প্রচুর পরিমানে উপচিয়া প্রবাহিত হবে।
 যাহোক, যারা এই সুন্দর সুসমচারের সত্যে বিশ্বাস করে না তাদের অন্তরে পবিত্র আত্মার জীবন্ত জলের এক ফোঁটাও প্রবাহিত না। যে পর্যন্ত না আমি বিশ্বাস করি এবং জল ও আত্মার সুসমাচার মেনে নিই সে পর্যন্ত আমার অন্তর দিয়ে এক ফোঁটাও আধ্যাত্মিক জীবন্ত জল প্রবাহিত হয় নাই। যদিও সেই সময়ে আমি আগ্রহান্বিতভাবে যীশু খ্রীষ্টেতে বিশ্বাস করেছিলাম, আমি পবিত্র আত্মার জীবন্ত জলের গুরুত্ব জানি নাই, কারণ আমার অন্তরে পবিত্র আত্মা ছিল না। যাহোক, এখন আমি জল ও আত্মার সুসমাচারে আছি এবং পবিত্র আত্মার জীবন্ত জল সুন্দরভাবে আমার অন্তর থেকে প্রবাহিত হচ্ছে।
 এখন আমার অন্তর থেকে পবিত্র আত্মার জীবন্ত জল প্রবাহিত হচ্ছে এবং যারা ঈশ্বরের বাক্য শ্রবণ করে ও বিশ্বাস করে তাদের অন্তরেও প্রবাহিত হয়। ঠিক যেমন যীশু বলেন, “যদি কেহ পিপাসিত না হয়, আমার কাছে আইসুক ও পান করুক,” যারা জল ও আত্মার সুন্দর সুসমাচারে বিশ্বাস করে, নূতনজন্ম প্রাপ্ত খ্রীষ্টিয়ানদের মাধ্যমে পবিত্র আত্মার জীবন্ত জল অন্যদের নূতন করবে। এই জীবন্ত জল এই মুহূর্তে আমার অন্তরে জল ও আত্মার সুসমাচারে বিশ্বাসের সহিত একসঙ্গে প্রবাহিত হচ্ছে; অন্যদেরকেও এটা থেকে পান করতে অনুপ্রাণিত করছে। ঈশ্বর নদীর মত আমার অন্তরে পবিত্র আত্মার জীবন্ত জল প্রবাহিত করছেন। যাদের অন্তরে বাসকারী পবিত্র আত্মা আছে তারাই কেবল এর সঙ্গে ঘনিষ্টভাবে পরিচিত।
প্রকাশিত বাক্যে যেমন লিখিত আছে যে, যারা এটা পেয়েছে তারা ব্যাতিত অন্য কেউ জানেনা, অন্তরে বাসকারী পবিত্র আত্মার গোপনীয়তা কেবল তারাই জানে যারা জল ও আত্মার সুসমাচার জানে ও বিশ্বাস করে। তাছাড়া আপনি জানবেন পবিত্র আত্মা কার মধ্যে বাস করে। আপনি জানবেন যে, যারা যীশুর সুসমচারে বিশ্বাস করে কেবল তাদেরই অন্তরেবাসকারী পবিত্র আত্মা দত্ত হয়েছে।
 

কেবল ক্রুশীয় রক্তই আমি বিশ্বাস করি
 
যদিও দশ বছর যাবৎ আমি যীশুর ক্রুশীয় রক্তে বিশ্বাস করি, তথাপি পাপ আমার অন্তরে ছিল। ঐসময়ে আমার বিশ্বাস ছিল যে, আমার পাপ কেবল যীশুর ক্রুশীয় রক্তের মাধ্যমে ক্ষমা হয়েছিল৷ যাহোক, এই প্রকার বিশ্বাসের মাধ্যমে আমি না পেয়েছিলাম সম্পূর্ণ পাপের ক্ষমা, না পেয়েছিলাম অন্তরে বাসকারী পবিত্র আত্মা, আমার জীবনে কেবল বিশৃঙ্খল অবস্থা ও শূণ্যতা ছিল। একমাত্র যে চিহ্নটি যীশুতে আমার বিশ্বাস প্রদর্শণ করত তা হল, আমার গীর্জাতে হাজির হওয়ার বিষয়টি।
 তখন আমি আমার বিশ্বাস পরিবর্তনের উদ্দেশে পূর্ণবিবেচনা শুরু করি। আমি কি বাস্তবিক পবিত্র আত্মা পেয়েছিলাম? যখন আমি প্রথম যীশুতে বিশ্বাস করেছিলাম, আমার অন্তর তাঁর প্রেমে আসক্ত হয়েছিল এবং এমনকি আমি নানা ভাষার দান পেয়েছিলাম। কিন্তু আমার কি হয়েছিল? আমি উহা উপলব্দি করলাম যে, প্রবল আবেগে দগ্ধ হওয়ার অভিজ্ঞতা অন্তরে বাসকারী পবিত্র আত্মার চিহ্ন নয় এবং আমি বাস্তবেই কোন পবিত্র আত্মা পাইনি। আমি যীশুতে বাস্তবেই কোন পবিত্র আত্মা পাইনি। আমি যীশুতে বিশ্বাস করি কিন্তু পবিত্র আত্মা এবং পবিত্র আত্মার জীবন্ত জল আমার অন্তরে ছিলনা।
 এটা আমার অন্তরে গরম বা ঠান্ডা বাস্তবিক কোন গুরুত্ব ছিল না, যেহেতু আমার বিশ্বাসের ভিত্তি ছিল ক্যালভিনিজম। বাস্তবিক আমি প্রশ্নগুলির উত্তর নিন্মে প্রদান করলাম:
(১) পবিত্র আত্মা কি আমার মধ্যে বাস করে? -না। আমি নিশ্চিত নই তিনি আমার মধ্যে আছেন।-
(২) আমাতে কি পাপ আছে? - হ্যাঁ, আছে। প্রত্যক্ষভাবে। তখনও পাপ আমার মধ্যে ছিল, যদিও আমি যীশুর ক্রুশীয়। রক্তে বিশ্বাস করতাম। আমার অন্তরে তখনও পাপ ছিল যদিও আমি যীশুতে বিশ্বাস করতাম এবং প্রতিদিন আমি অনুতাপের প্রার্থনা করতাম। আমি কঠোরভাবে চেষ্টা করলেও আমার অন্তরের পাপ সম্পূর্ণভাবে কখনই পরিস্কৃত হয়নি।
 ‘কিভাবে আমি অন্তরে বাসকারী পবিত্র আত্মা গ্রহণ করতে পারি? ‘কিভাবে আমি আমার অন্তরের কঠিন পাপ ধৌত করতে পারি?’ আমি যীশুতে বিশ্বাস করার পরেও আমার মনের মধ্যে দুটো সমস্যা বিরক্তিকর সমস্যা ছিল। আমি যীশুতে বিশ্বাসী হওয়ার পর নানা ভাষা বলতাম এবং আমি আরও বিশ্বাস করতাম যে, যীশুর রক্তে আমার বিশ্বাসের কৃতজ্ঞতা প্রকাশে আমার পাপ পরিস্কৃত হয়েছিল।
 যাহোক, সময় যেতে থাকল, আরও অধিক পাপ আমার অন্তরে স্তুপিকৃত হতে থাকল। আমি পাপে পূর্ণ হয়ে গেলাম। অনুতাপ অথবা উপবাস প্রার্থনা আমার অন্তর থেকে পাপ ধৌত করতে পারল না
 
 ৪জন ক্যালভিন কর্ত্তৃক খ্রীষ্টিয় একটি মতবাদ প্রবর্তিত হয়েছে; যার দ্বারা পূর্বমনোনয়ন ও পরিত্রাণের উপরে জোর দেওয়া হয়েছে। আরমেনীয় অবস্থানে ক্যালভেনীয় মতবাদকে পাঁটি ধাপে উন্নীত করা হয়েছে।
ক্যালভেনীয় শিক্ষা: ১) পরিপূর্ণ নৈতিক বিচ্যুতি: অর্থাৎ মানুষ তার দেহ, আত্মা, মন এবং আবেগ- সর্ববিষয়ে নৈতিক ভাবে বিচ্যুতি হয়েছে। ২) অযাচিত অনুগ্রহ: অর্থাৎ মানুষের প্রতি ঈশ্বরের অনুগ্রহ ঈশ্বরের নিজ ইচ্ছার উপরে নির্ভর করে, মানুষের এব্যাপারে কোন কিছুই করার নেই। এটা সম্পূর্ণরূপে মানুষের জন্য অযাচিত। ৩) প্রায়শ্চিত্তের সীমাবদ্ধতা: অর্থাৎ খ্রীষ্ট পৃথিবীর প্রতিটি মানুষের পাপের জন্য প্রায়শ্চিত্ত সাধন করেন নি, কিন্তু কেবলমাত্র যাদেরকে তিনি পরিত্রাণের জন্য পূর্বে মনোনীত করেছেন, তাদের জন্যই প্রায়শ্চিত্ত সাধন করেছেন। ৪) অপ্রতিরোধ্য অনুগ্রহ: অর্থাৎ কারও জন্যে ঈশ্বরের পরিত্রাণের আহবান প্রতিরোধ করা যায় না। ৫) সাধুগণের দীর্ঘসহিষ্ণুতা: পরিত্রাণ হারানো সম্ভব নয়। কিন্তু জল ও আত্মার সুসমাচার থেকে আপনি এই শিক্ষা লাভ করতে পারেন, বিশেষত: প্রায়শ্চিত্তের সীমাবদ্ধতা- এই মতবাদের বিষয়ে।
 
 
যতক্ষণ না পর্যন্ত আমি যীশুর রক্তে নির্ভর করলাম। আমি আমার প্রকৃত পাপ সম্পর্কে দীর্ঘ সময় যাবৎ উদ্বিগ্ন ছিলাম। আমি আরও উদ্বিগ্ন হলাম, আরও তীব্রভাবে আমি অন্যদের কাছে যীশুর সুমাচার প্রচার করতে থাকলাম। আমি আরও নিয়মিতভাবে গীর্জাতে যেতে থাকলাম এবং তাঁর রক্তে নির্ভর করে যীশুর সেবায় নিজেকে উৎসর্গ করলাম।
 যাহোক, সময় যেতে থাকল, প্রকৃত পাপ আমার অন্তরকে সত্য বিশ্বাসকে বদ্ধ করে দিতে থাকল, পূর্বাপেক্ষা যীশুতে বিশ্বাস করা আরও কঠিনতর হয়ে পড়ল। আমি যীশুর রক্তে আরও অধিক নির্ভর করতে চেষ্টা করলাম এবং আমার উত্তম কাজগুলি সম্মুখে রাখলাম এবং ঈশ্বরের সাক্ষাতে আমরা উৎসর্গীকরণ আরও উন্নীত করলাম, যাহোক, আমার হৃদয়ের শূণ্যতা আরও বড় হল। এই রকম বিশ্বাস আমাকে শূণ্য ও অস্বাভাবিক অনুভূতি এনে দিয়েছিল এবং আমাকে কপটী খ্রীষ্টিয়ানে পরিণত করেছিল যার আবির্ভাব ছিল সতর্কতার সাথে। নিজের বিষয় চিন্তা করা, প্রত্যেকের মত যীশুতে বিশ্বাস কর, এটা আমার জন্য ঠিক নয়। আমার বিশ্বাস বিপথে চালিত হচ্ছিল, তাই আমি ওটা অস্বীকার করতে চেষ্টা করেছিলাম। যাহোক, যীশুর রক্ত এবং অনুতাপের প্রার্থনা আমার প্রকৃত পাপগুলো ধৌত করতে পারল না।
 তখন কোন বিশ্বাস আমার প্রকৃত পাপগুলো পরিস্কৃত করতে পেরেছিল? আমার প্রকৃত পাপগুলো শুধুমাত্র আমার বিশ্বাসের মাধ্যমে ধৌত হতে পারত না, যে বিশ্বাস হল যখন তিনি যর্দ্দন নদীতে বাপ্তাইজিত হয়েছেন তখন আমার সমস্ত পাপ যীশুতে চলে গিয়েছে। এটাই মথি ৩:১৩-১৭ পদে লিখিত হয়েছে। তাহলে কেন আমার প্রকৃত পাপগুলো যীশুর রক্তে ধৌত হল না? আমি সুন্দর সুসমাচার জানতাম না এবং বিশ্বাস করতাম না যা যীশুর উপর যোহনের বাপ্তিস্মের অর্থ ধারণ করে।
 এর অর্থ কি এই যে, যীশুর বাপ্তিস্মের মাধ্যমে জগতের সমস্ত পাপ ধুয়ে গেছে? হ্যাঁ, এটা ঠিক। বাইবেল এই সাক্ষ্য বহন করছে, “যদি কেহ জল ও আত্মা হইতে না জন্মে, তবে সে ঈশ্বরের রাজ্যে প্রবেশ করতে পারে না” (যোহন ৩:৩-৫)। যীশু এই জগতে আসলেন এবং যোহনের দ্বারা তাঁর বাপ্তিস্মের মাধ্যমে তিনি এই জগতের সমস্ত পাপ তুলে নিলেন।
 আমি এই সম্পর্কে তখনও সন্ধিহান ছিলাম এবং পুরাতন ও নূতন নিয়মে এই ব্যাখ্যার জন্য তুলনা করি। আমি যে ফলাফল পেয়েছিলাম বস্তুত তা ছিল সত্য। যখন যীশু বাপ্তাইজিত হয়েছিলেন এবং তখন তাঁর উপরে জগতের সমস্ত পাপ স্থানান্তরিত হয়েছিল এবং আমার পাপও সেই সময় তার উপর স্থানান্তরিত হয়েছিল। এই বাক্যে আমার বিশ্বাসের মাধ্যমে আমি পবিত্র হয়েছিলাম। আমি উপলব্দি করলাম যে, বাইবেলে যেভাবে লিখিত রয়েছে এটাই ছিল সত্যের বাক্য, এবং এটা জগতের সর্বাপেক্ষা সুন্দর সুসমাচার।
 তাছাড়া, আমি উপলব্দি করি কেন আমার পাপ যীশুর রক্তে বিশ্বাসের মাধ্যমে মুছে গেল না। তার কারণ ছিল, যখন আমি যর্দ্দন নদীতে তাঁর বাপ্তিস্মের সত্য জানি নাই, আমি আমার প্রকৃত পাপ যীশুতে স্থানান্তর করতে পারি নাই। অবশেষে আমি সত্যের সন্ধান পেলাম। আমি শিখেছিলাম যে, যীশু আমার জন্য এই জগতে এসেছিলেন এবং তিনি তাঁর বাপ্তিস্মের মাধ্যমে জগতের সমস্ত পাপ তুলে নিলেন এবং অতঃপর জগতের সমস্ত পাপ থেকে আমাদিগকে মুক্ত করতে তিনি ক্রুশারোপিত হলেন। আমি আরও শিখলাম ও সত্যে বিশ্বাস করলাম যে, যীশুর বাপ্তিস্ম ও ক্রুশীয় রক্তের উদ্দেশ্য ছিল জগতের সমস্ত পাপ তুলে নেওয়া। যীশু প্রদত্ত সুন্দর। সুসমাচারে আমার বিশ্বাসের প্রতি আমি ন্যায্য কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি, কারণ আমার সমস্ত পাপ ক্ষমা হয়েছে।
 এটা গীর্জার মতবাদ ছিল না যে, আমার পাপ মুছে ফেলা হয়েছে, এটা ছিল যীশুর বাপ্তিস্ম ও তার ক্রুশীয় রক্ত যা এরূপ করেছিল। এই সত্য ছিল সুন্দর সুসমাচারে। আমি আমার সমস্ত পাপ থেকে রক্ষা পেলাম এবং ধার্মিক হলাম, যীশুর রক্তে আমার বিশ্বাসের মাধ্যমে নয়, কিন্তু যীশুর বাপ্তিস্ম এবং তাঁর ক্রুশীয় রক্তে আমার পরিত্রাণের বিশ্বাসের মাধ্যমে।
 একাধিক বিষয়ের জন্য আমি ধন্যবাদ দিতে চাই যে, আমি যখন সুন্দর সুসমাচারে বিশ্বাস করতে শুরু করেছিলাম তার পর থেকে ঈশ্বরের পবিত্র আত্মা আমার উপরে নেমে এসেছিল। এখন পবিত্র আত্মার সঙ্গে যীশুর বাক্য যোহনের দ্বারা বাপ্তিস্ম ও তাঁর ক্রুশীয় রক্ত এক সঙ্গে আমার মধ্যে বাস করছে।
 আমি প্রভুর ধন্যবাদ করি, যিনি আমাকে সুন্দর সুসমাচার দিয়েছেন এবং যিনি যীশুর প্রেরিতদের মত একই বিশ্বাস প্রচার করতে সুযোগ দিয়েছেন। ঈশ্বর আমাকে পবিত্র আত্মার দান দিয়েছেন, এমনকি যদিও আমি কেবল মাত্র সুন্দর সুসমাচারে বিশ্বাস স্থাপন করেছিলাম। এখন আমি এই সংবাদ পৃথিবীর সমস্ত লোকের কাছে মহাসম্মানে ও দৃঢ় বিশ্বাসের সহিত প্রকাশ করতে পারি। নিঃসন্দেহে আমি তাদেরকে বলতে পারি যে, কেবল যীশুর রক্তে বিশ্বাস করে তাদের সমস্ত পাপ মুছে ফেলা যাবে না।
কিন্তু আমি তাদের বলতে পারি যে, নিশ্চয়ই তাদের সমস্ত পাপ ধৌত হয়ে যাবে, কেবল যদি তারা সুন্দর সুসমাচারে বিশ্বাস করে, যাহা যোহনের দ্বারা যীশুর বাপ্তিস্ম ও তাঁর ক্রুশীয় রক্তের কথা বলে। এই সুন্দর সুসমাচার প্রচার করতে ঈশ্বরের সাক্ষাতে আমার অতি সামান্যতম লজ্জাবোধও ছিল না। পৃথিবীর সব লোকের কাছে জল ও আত্মার নূতন জন্মের এই সুন্দর সুসমাচার আমি সম্মানজনকভাবে প্রচার করতে পারি। আমি প্রভুকে ধন্যবাদ দেই। আমি প্রভুকে কৃতজ্ঞতা জানাই, যিনি আমাকে জল ও আত্মার সুসমাচারের দ্বারা জীবন্ত জল পান করতে দিয়েছেন।
 

রোগশয্যা সম্বন্ধীয় বিশ্লেষনে দেখা যায় যে জল ও আত্মার সুসমাচার সেই সত্য সুসমাচার।
 
আপনি কি বাস্তবিক আপনার পাপের ক্ষমা এবং অন্তরে বাসকারী পবিত্র আত্মা পেয়েছেন? আপনি কিভাবে বলতে পারেন যে, সুসমাচার প্রকৃতপক্ষে সত্য? একদা আমি জনগনের উপরে পরীক্ষা সম্পাদন করেছিলাম, যারা যীশু কর্ত্তৃক আমাদিগকে প্রদত্ত সুসমাচারে বিশ্বাস করেছিল। এক ব্যক্তির কাছে আমি যীশু খ্রীষ্টের ক্রুশীয় রক্তের সুসংবাদ প্রচার করেছিলাম। আমি তাকে বলেছিলাম যে, যীশু খ্রীষ্টেতে কোন পাপের লেশমাত্র নেই। অন্য ব্যক্তির কাছে আমি যোহন কর্ত্তৃক যীশুর বাপ্তিস্ম ও ক্রুশীয় রক্তের সুন্দর সুসমাচার প্রচার করেছিলাম। ফলে যে ব্যক্তি কেবল যীশুর রক্তে বিশ্বাস করে তার পাপের ক্ষমা পেয়েছিলেন তিনি বলেছিলেন যে, তিনি ধারাবাহিকভাবে তার প্রকৃত পাপের ক্ষমা পেয়েছিলেন। কিন্তু 'অন্যকথায়, যে ব্যক্তি যীশুর বাপ্তিস্ম ও রক্তের সুন্দর সুসমাচারে বিশ্বাস করেছিলেন, তিনি বলেছিলেন যে, এখন তিনি একজন পাপমুক্ত ব্যক্তি হয়েছেন।
 তিনি বলেন যে, তার অন্তরে কোন পাপ নেই, কারণ তিনি এই সত্য বিশ্বাস করেছিলেন যে, যীশু তার সমস্ত পাপ তুলে নিয়েছেন এবং তাদের জন্য বিচারিত হয়েছেন। তিনি ঈশ্বরের কাছ থেকে পবিত্র আত্মা গ্রহণ করতে সমর্থ হয়েছিলেন, কারণ তিনি সুন্দর সুসমাচারে বিশ্বাস করেছিলেন, যা বলে যে, যীশু যোহন কর্ত্তৃক বাপ্তাইজিত হয়ে জগতের সমস্ত পাপ ধুয়ে দিয়েছেন।
 ফলে এই লোক বলতে পেরেছিল যে, তার অন্তরে কোন পাপ স্থায়ী ছিল না, কারণ সুন্দর সুসমাচারে তার বিশ্বাসের মাধ্যমে তিনি তার অন্তরে পবিত্র আত্মা পেয়েছিলেন। পবিত্র আত্মা তার অন্তরে দৃঢ় বিশ্বাস স্থাপন করে বলেন যে, তার অন্তরে কোন পাপ নেই। যোহন কর্ত্তৃক যীশুর বাপ্তিস্ম ও তাঁর ক্রুশীয় রক্তে যারা বিশ্বাস করে ঈশ্বর তাদেরকে অন্তরে বাসকারী পবিত্র আত্মা দেন। কার মধ্যে পবিত্র আত্মা বাস করেন? যারা যোহন কর্ত্তৃক যীশুর বাপ্তিস্ম ও তার ক্রুশীয় রক্তের সুন্দর সুসমাচারে বিশ্বাস করে, তাদেরকে পবিত্র আত্মা দান হিসাবে দেয়া হয়ে থাকে।
 পঞ্চাশত্তমীর দিনে ঠিক সামান্য বিস্ময়কর বস্তু দেখেছিলেন কারণ অনেক লোক পবিত্র আত্মা গ্রহণের সত্য সম্পর্কে ভুল বুঝেছিল এবং সুন্দর সুসমাচার একান্তে রেখেছিল। লোকেরা ভাবে যে, যদি তারা বেপরোয়াভাবে প্রার্থনা করতে থাকে ও পবিত্র আত্মার অন্বেষণ করতে থাকে তাহলে তারা অন্তরে বাসকারী পবিত্র আত্মা গ্রহণ করতে সমর্থ হবে। দীর্ঘকাল যাবৎ সমগ্র পৃথিবীর খ্রীষ্টিয়ানদের সত্য সম্পর্কে সামান্য জ্ঞান ছিল না, যেখানে বলা হয়েছিল যে, কেবল যীশুর বাপ্তিস্ম ও সুন্দর সুসমাচারে বিশ্বাস করে কেউ পবিত্র আত্মা গ্রহণ করতে পারে। যাহোক, এখন অনেক ঈশ্বরের সেবক, যারা জল ও আত্মার সুসমাচারে তাদের বিশ্বাসের মাধ্যমে অন্তরে বাসকারী পবিত্র আত্মা গ্রহণ করে পবিত্র আত্মার সাহায্যে সুসমাচার প্রচার করছে। ফলে সমস্ত পৃথিবীর অনেক লোক অন্তরে বাসকারী পবিত্র আত্মা গ্রহণ ও সুন্দর সুসমাচার সত্য বলে গ্রহণ করতে শিক্ষা লাভ করছে। ঈশ্বর লোকদের অনুমতি দেন যারা এই সুন্দর সুসমাচার বিশ্বাস করে অন্তরে বাসকারী পবিত্র আত্মা গ্রহণে অভিজ্ঞ হয়েছে। বাইবেল এটা বলে যে, “শেষকালে এইরূপ হইবে, ইহা ঈশ্বর বলিতেছেন, আমি মর্ত্ত্যমাত্রে উপরে আপন আত্মা সেচন করিব” (প্রেরিত ২:১৭)। যাহোক কারো জানা উচিত যে, সুন্দর সুসমাচার জ্ঞাত হওয়া ব্যাতিত যদি সে অন্তরে বাসকারী পবিত্র আত্মা গ্রহণ করতে চায়, তবে সে ভুল করবে। যোহন কর্ত্তৃক যীশুর বাপ্তিস্ম ও তাঁর ক্রুশীয় রক্তে বিশ্বাস ব্যাতিত অন্তরে বাসকারী পবিত্র আত্মা গ্রহণের অন্য কোন উপায় নেই।
 যেহেতু ঈশ্বর বলেন যে, জল ও আত্মা দ্বারা নূতন জন্ম প্রাপ্ত হলেই সে স্বর্গ রাজ্যে প্রবেশ করতে পারবে, এবং পবিত্র আত্মা দানস্বরূপ নূতন জন্মের অধিকার: এখানে সন্দেহের কোন অবকাশ নেই যে স্বর্গরাজ্যে প্রবেশের জন্য প্রত্যেকের অন্তরে বাসকারী পবিত্র আত্মা প্রয়াজোন। জল ও আত্মা সুন্দর সুসমাচারে বিশ্বাস ব্যাতিত আপনি কিভাবে পবিত্র আত্মা গ্রহণ অথবা স্বর্গরাজ্যে প্রবেশের বিষয় ভাবতে পারেন? সুন্দর সুসমাচারে বিশ্বাস ছাড়া স্বর্গে থাকার আর কোন উপায় নেই। আপনি কেবল যীশুর বাপ্তিস্ম ও তাঁর রক্তের সুসমাচারে বিশ্বাস দ্বারাই পবিত্র আত্মা গ্রহণ করতে পারেন। ঠিক যেমন আমরা যখন কোন জিনিস ক্রয় করি তখন টাকা পরিশোধ করি, ঠিক তেমন আমরা সুন্দর সুসমাচারে বিশ্বাস করি তখন অন্তরে বাসকারী পবিত্র আত্মা গ্রহণ করি।
 আমি আপনাকে বলতে চাই যে, যদি আপনি সত্যই অন্তরে বাসকারী পবিত্র আত্মা গ্রহণ করতে চান তাহলে আপনাকে প্রথমে জ্ঞাত হওয়া এবং জল ও আত্মার সুসমাচারে বিশ্বাস করা আবশ্যক। তাহলে আপনার পবিত্র আত্মা গ্রহণের অভিজ্ঞতা হবে। আপনি কেবল জল ও আত্মার সুন্দর সুসমাচারে বিশ্বাস দ্বারা অন্তরে বাসকারী পবিত্র আত্মা গ্রহণ করতে পারেন। ঈশ্বর অন্তরে বাসকারী পবিত্র আত্মার সহিত আপনার উপস্থিতি কামনা করেন।
 সময় অতিক্রান্ত হওয়ার মত আমিও সুন্দর সুসমাচারে বিশ্বাস করি, আমি প্রবলভাবে অনুভব করি যে, এই সুন্দর সুসমাচার যা ঈশ্বর আমাকে দিয়েছেন, তা এই পৃথিবীতে সুন্দর ও মূল্যবান। আমি ঈশ্বরকে কৃতজ্ঞতা জানাই। আপনি কি একই বিষয় অনুভব করেন? আমরা উপলব্দি করি যে, আমাদের মধ্যে পবিত্র আত্মা পেয়েছে, তারা ঈশ্বরের মহা আশীর্বাদ পেয়েছে।
 আমি আপনাকে একটা সংবাদ দিচ্ছি কিভাবে আপনি সুন্দর অসমাচারে বিশ্বাসের দ্বারা অন্তরে বাসকারী পবিত্র আত্মা পেতে পারেন। লোকেরা নিজেদেরকে অন্তরে বাসকারী পবিত্র আত্মা গ্রহণে যোগ্য করে তুলতে পারে কেবল জল ও আত্মার নূতন জন্ম প্রাপ্ত এই সুন্দর সুসমাচার সত্য বলে গ্রহণ করে।
 যোহন ৭:৩৮পদে যীশু বলেন, “যে আমাতে বিশ্বাস করে, শাস্ত্রে যেমন বলে, তাহার অন্তর হইতে জীবন জলের নদী বহিবে।” এর অর্থ এই যে, লোকেরা যারা সুন্দর সুসমাচারে বিশ্বাসের দ্বারা তাদের সমস্ত পাপের ক্ষমা পেয়েছে, যেন যীশু খ্রীষ্ট তাদেরকে অন্তরে বাসকারী পবিত্র আত্মা দেন। তাদের অন্তর হতে পবিত্র আত্মার জীবন্ত জল নদীর মত প্রবাহিত হবে। লোকেরা যারা এই সুন্দর সুসমাচার বিশ্বাস করবে তারা জীবন্ত জলের প্রবাহে অভিজ্ঞ হবে।
 যদিও আমি জল ও আত্মার সুন্দর সুসমাচারের মাধ্যমে নূতন জন্মের পূর্বে যীশুর একজন ধর্মনিষ্ট বিশ্বাসী ছিলাম, আমার অন্তর হতে পবিত্র আত্মার জীবন্ত জল প্রবাহিত হত না। যাহোক, পরে আমি জল ও আত্মার সুন্দর সুসমাচারে বিশ্বাস করলাম। বাইবেলে যেমন লিখিত আছে সেই অনুসারে আমার অন্তর থেকে পবিত্র আত্মার জীবন্ত জল সুন্দরভাবে প্রবাহিত হতে শুরু করল। এমনকি এই মুহূর্তে ঈশ্বর আমাকে যা দিয়েছেন, সেই পবিত্র আত্মার জীবন্ত জল একত্রে জল ও আত্মার সুসমাচারের সঙ্গে প্রবাহিত হয়।
 পবিত্র আত্মার জীবন্ত জল আমার অন্তর থেকে সারা বছর উপচিয়া প্রবাহিত হতে থাকে। আমি অন্তরে বাসকারী পবিত্র আত্মা গ্রহণের পর থেকে একজন সুসমাচার প্রচারকের কাজ শুরু করি ও সুন্দর সুসমাচার প্রচার করতে থাকি।
 

সুন্দর সুসমাচারে বিশ্বাসের পর আমার বিশ্বাসের স্বীকারোক্তি এবং অন্তরে বাসকারী পবিত্র আত্মা গ্রহণ।
 
এটা ছিল শরৎ শেষ হওয়ার পূর্বে আমার প্রথম বিশ বছর। ঐ শরতে আমার মৃত্যুর অপরিহার্য্যতার বিষয়ে বিশেষভাবে ভাবতে লাগলাম। ঐ বছরে আমার জীবন বিশৃঙ্খল অবস্থা দ্বারা চিহ্নিত ছিল, শূণ্যতা ও অন্ধকারাচ্ছন্নতা আমার অন্তরে পাপের কারণ ছিল, আমি ভুল নির্দেশনায় চালিত হচ্ছিলাম, সঠিক পথে ফিরাতে পারে এমন কোন জ্ঞান আমার ছিল না। আমার শরীর অসুস্থ হয়ে পড়ল এবং আমার অন্তরে শূণ্যতা বৃদ্ধি পেতে থাকল।
 আমার পাপের কারণে, আমি পুরোপুরি হতাশ ছিলাম এবং নিশ্চিত ছিলাম না। আমার অন্য কোন মনোনয়ন ছিল না কিন্তু হঠাৎ আমার জীবন প্রদীপ নিভে যাওয়া আমার পাপের জন্য ক্ষমা ভিক্ষা চাওয়া। “হে সদাপ্রভু আমার মৃত্যুর পূর্বে তোমাতে আমার বিশ্বাসের মাধ্য আমি আমার পাপের ক্ষমা গ্রহণ করতে চাই। দয়া করে আমার শরীরের এই অসুস্থতা থেকে আমাকে আরোগ্য কর।” আমি প্রার্থনা পর প্রার্থনা করতে থাকলাম।
 ঠিক তখন আমার অন্তরের মধ্যে গভীর উন্মত্ত ক্রদ্ধ অবস্থা থেকে নূতন প্রত্যাশা সেচিত হতে শুরু করল। ঈশ্বরের জন্য আকাঙ্খায় আমার অন্তর পূর্ণ হয়ে গেল এবং উল্কাপিন্ডের মত উত্তপ্ত হয়ে উঠল। এটা কোন হতাশা ছিল না, এটা ছিল নূতন আশা, যার কারণে জীর্ণ বস্ত্র দগ্ধ হওয়ার মত আমার অন্তর দগ্ধ হতে থাকল। ঐ দিন থেকে আমি এক নূতন ধর্মীয় জীবন শুরু করলাম, বিশ্বাস করলাম যে, যীশু আমার পাপ থেকে আমাকে রক্ষা করার জন্য ক্রুশে মরেছেন।
 বেশীক্ষণ পরে নয়, আমার নানা ভাষা বলার অভিজ্ঞতা হল। ভাবলাম যেহেতু যীশু ক্রুশের উপর রক্ত পাত করেছেন, পরে আমি অবিরত চোখের জল ফেলতে থাকলাম। আমি কৃতজ্ঞ যে, তিনি আমার জন্য ক্রুশের উপর রক্ত পাত করেছেন।
 ঐ ঘটনার পর আমি আমার পূরাতন জীবন পরিত্যাগ করলাম এবং একটি নূতন কাজ পেলাম যা আমাকে পবিত্র রবিবার রক্ষা করতে অনুপ্রাণিত করল। ঐ সময় আমার অন্তর যীশুর জন্য প্রেমে পূর্ণ হয়ে গেল, এবং আমি কৃতজ্ঞতায় উপচে পড়তে থাকলাম, যেহেতু আমি অনুভব করলাম যে, যীশু আমার পাপ থেকে আমাকে রক্ষা করার জন্য ক্রুশে রক্ত ঢেলে দিয়েছেন। আমার ধর্মপরায়ন আত্মা বৃদ্ধি পেতে থাকল, কিন্তু অদ্বিতীয়ভাবে এর ভিত্তি ছিল যীশুর ক্রুশীয় রক্তের বাক্য।
 যাহোক, যথাসময় পার হয়ে গেল, আমার ধর্মীয় জীবন আমার দূর্বলতা ও আমার প্রকৃত পাপের কারণে বিপদগ্রস্ত হতে শুরু করল। আমার প্রকৃত পাপগুলি সম্পূর্ণভাবে ধৌত হল না, কারণ আমি কেবল যীশুর ক্রুশীয় রক্তে বিশ্বাস করেছিলাম। আমি অনুতাপের প্রার্থনার মাধ্যম আমার প্রকৃত পাপগুলি ধৌত করার চেষ্টা করতে থাকলাম। যাহোক, ঈশ্বরের ক্ষমা পাওয়ার আশায় আমি যে প্রার্থনাগুলি উৎসর্গ করেছিলাম তা আমার প্রকৃত পাপগুলি সম্পূর্ণভাবে ধৌত করতে পারল না। এর সমস্ত কারণ ছিল আমি ঈশ্বরের ব্যবস্থা রক্ষা করতে পারি নাই। আমার প্রকৃত পাপগুলি স্তুপিকৃত হতে থাকল।
 যদিও আমার অনুতাপের প্রার্থনার মাধ্যমে আমার সমস্ত পাপগুলি সম্পূর্ণভাবে ধৌত হয় নাই, আমার অন্যকোন মনোনয়ন ছিল না কিন্তু এই প্রার্থনাগুলো অবিরত বলছিলাম। আমি বিশ্বাস করতাম যে, সব সময়ই আমি পাপ করছি, যীশুর ক্রুশীয় রক্তের বিষয় চিন্তা করে এবং অনুতাপের প্রার্থনার মাধ্যমে আমি আমার ধর্মীয় জীবন দীর্ঘায়িত করলাম, আমার দূর্বলতার কারণে আমার প্রকৃত পাপগুলি স্তুপিকৃত হচ্ছিল। এইসব পাপের কারণে আমার দুর্ভোগ কেবল বৃদ্ধি পাচ্ছিল।
 আমি একজন ফরীশী খ্রীষ্টিয়ানে পরিণত হলাম, এবং আমি একজন ডিকন হিসাবে নিয়োগ পেলাম এবং আমার পাপের ভার বহনে অমনোযোগী একজন সুসমাচার প্রচারক হলাম। যখনই আমি সুসমাচার প্রচারে গেলাম, আমার প্রকৃত পাপের জন্য ব্যাথা অনুভব করলাম; ভাবলাম এই ছিল আমার আত্মা পরিস্কৃত করার একমাত্র উপায়। কিন্তু স্ব-উৎসর্গকরণ ও মতবাদের উপর এই প্রকার বিশ্বাসের ভিত্তির মাধ্যমে আমার প্রকৃত পাপগুলো ধৌত হল না।
 আমি শয়তান দ্বারা ভূয়োদর্শনে ধৃত হলাম। আমি আমার প্রকৃত পাপের কারণে দন্ডের মধ্যে পড়লাম এবং আমার অপরাধের জন্য মৃত্যুর দিকে অগ্রসর হতে থাকলাম। “আপনার পাপ আছে,তাই নয় কি?” শয়তান আমার পাপের জন্য অবিরত দোষারোপ করছে ও মানষিক তীব্র যন্ত্রনা দিচ্ছে।
 আমার বিশ্বাস ছিল ধংসের কিনারা। আমি উপলব্দি করলাম যে, যীশুর রক্ত ও অনুতাপের প্রার্থনায় বিশ্বাসের মাধ্যমে আমার প্রকৃত পাপগুলো ধৌত করতে পারি নাই, অবশেষে নিজেকে একটি নৈরাশ্যের মধ্যে দেখতে পেলাম।
ধর্মবিষয়ক শিক্ষালয়ে ক্যালভিনিজম অধ্যায়ন কালে আমি যোহনের দ্বারা যীশুর বাপ্তিস্মের বিষয়ে উৎসাহী হয়ে উঠি। আমি অনেক অধ্যাপককে জিজ্ঞেস করেছিলাম কেন খ্রীষ্ট যর্দ্দনে যোহন কর্ত্তৃক বাপ্তাইজিত হলেন। কিন্তু তাদের উত্তর ছিল মামুলি, যেমন তিনি তাঁর নম্রতা দেখানোর জন্য বাপ্তাইজিত হইয়েছিলেন অথবা তিনি যে ঈশ্বরের পুত্র ছিলেন তা ঘোষনা করতে। এই উত্তরগুলি আমার কৌতুহল প্রশমিত করার পক্ষে যথেষ্ট ছিল না।
 

সুন্দর সুসমাচার আমার চিনতে পারার কারণ যোহন কর্ত্তৃক যীশুর বাপ্তিস্মের সত্যতা
 
শিক্ষালয়ে আমার সময়ের পরে, আমার পাপ তখনও ধৌত হয়ে যায় নাই, এবং আমি পূর্বাপেক্ষা আরও বেশী চাপ অনুভব করতে থাকলাম। তারপর একদিন আমি বুঝতে পারলাম কেন যীশু বাপ্তাইজিত হলেন এবং কেন তিনি বললেন যে, এই কাজের মাধ্যমে সমস্ত ধার্মিকতা পূর্ণতাপ্রাপ্ত হল। সুন্দর সুসমাচার বলে যে, যর্দ্দন নদীতে তাঁর বাপ্তিস্মের মাধ্যমে যীশুর উপরে আমার সমস্ত পাপ স্থানান্তরিত হল। তাঁর লিখিত বাক্যের মাধ্যমে ঈশ্বর আমাকে এই সত্য উপলব্দি করতে সাহায্য করেছেন।
 সুন্দর সুসমাচারে লিখিত ঈশ্বরের বাক্য বার বার পড়ার পর অবশেষে আমি সত্য জানতে পারলাম যে, যোহনের দ্বারা তার বাপ্তিস্মের মাধ্যমে আমার সমস্ত পাপ যীশুতে স্থানান্তরিত হয়েছে এবং সেগুলোর জন্য তিনি ক্রুশের উপর বিচারিত হয়েছেন।
 এই সত্য যখন আমি উপলব্ধি করলাম তখন অন্তরে বাসকারী পবিত্র আত্মা আমার মধ্যে এল। আমি বুঝলাম এই সুন্দর সুসমাচার বিশ্বাস করার পর আমার অন্তরে সমস্ত পাপ ক্ষমা হয়ে গেল। যে পাপ আমাকে নৈরাশ্যের মধ্য ফেলে দিয়েছিল, সুন্দর সুসমাচারের ক্ষমতা দ্বারা তা সম্পূর্ণভাবে ধুয়ে গেল। ঐ পাপগুলি আমার অবশেষে স্ব-উৎসর্গীকরণ ও অনুতাপের প্রার্থনা দ্বারা কখনও মুছে যেত না যা এখন সম্পূর্ণভাবে অদৃশ্য হয়ে গেল। আমি আন্তরিকতার সাথে প্রভুকে ধন্যবাদ জানাই।
 আমি সত্য কথা বলি, যখন আমি বলি যে, জগতের সমস্ত পাপ যীশুর ক্রুশীয় রক্তের মাধ্যমে ধৌত হয় না। যোহনের দ্বারা যীশুর বাপ্তিস্মে পাপের ক্ষমা হয়ে থাকে। এখন সকলেই বুঝতে এবং বিশ্বাস করবে যে, জল ও আত্মার সুন্দর সুসমাচারের প্রতি কৃতজ্ঞ হওয়াতে তার সমস্ত পাপ ধৌত হবে। আমার অন্তরের গভীরে পবিত্র আত্মার আবাস আছে কারণ আমি জল ও আত্মার সুন্দর সুসমাচারে বিশ্বাস করি, এবং ঈশ্বরের বাক্যের সাক্ষ্যে, যাতে তিনি তাঁর পুত্রের বিষয়ে সাক্ষ্য দিয়েছেন, যা আমার অন্তর থেকে পাপ দূর করতে যথেষ্ট ছিল। সুন্দর সুসমাচারে বিশ্বাসের ফলস্বরূপ আমি কপোতের ন্যায় পবিত্র আত্মা গ্রহণ করেছিলাম।
 ঐ দিন থেকে, পবিত্র আত্মা আমার অন্তরে কাজ করতে থাকে, আমার আধ্যাত্মিক কাজ অন্যকথায়, সুন্দর সুসমাচার প্রচার করতে সমর্থ হয়েছিলাম। এখন আমার অন্তরে কোন পাপ নাই। যোহনের দ্বারা যীশুর বাপ্তিস্ম ও তাঁর ক্ৰশীয় রক্ত আমার পাপ ক্ষমার একনিষ্ঠ সাক্ষী এবং অন্তরে বাসকারী পবিত্র আত্মা গ্রহণে আমাকে চালিত করে। হাল্লিলূয়া! আমি প্রভুর প্রশংসা করি। পবিত্র আত্মা নিরবভাবে কপোতের ন্যায় আমার উপরে নেমে আসল এবং জল ও আত্মার সুসমাচারে বিশ্বাস করার দিন থেকে আমার অন্তরে বাস করতে শুরু করল। তিনি মাঝে মাঝে আমার অন্তরে কপোতের ন্যায় কাজ করতে থাকেন, অন্য সময় অগ্নিকুন্ডের ন্যায় বিস্ফোরিত হয়।
 এখন আপনি অন্তরে বাসকারী পবিত্র আত্মা গ্রহণ করতে পারেন, যদি আপনি জল ও আত্মার সুন্দর সুসমাচার গ্রহণ করতে সম্মত হন ও বিশ্বাস করেন। আপনি কি আমার সঙ্গে একসাথে জল ও আত্মার সুন্দর সুসমাচার বিশ্বাস দ্বারা পবিত্র আত্মা গ্রহণ ও প্রভুর প্রশংসা করতে চান না? আপনি কি আমার সঙ্গে সমস্ত পৃথিবীতে জৌল ও আত্মার সুসমাচার প্রচারের কাজ করতে চান না? জল ও আত্মার সুন্দর সুসমাচার পবিত্র আত্মা আপনাকে পবিত্র করবে এবং আপনাকে অন্তরে বাসকারী পবিত্র আত্মা দেওয়া হবে। ঈশ্বরের ধার্মিকতা বিশ্বাস থেকে বিশ্বাসের সুসমাচারের মধ্যে প্রকাশ করা হয়। এই কারণে জল ও আত্মার সুন্দর সুসমাচারে বিশ্বাসের মাধ্যমে কেবল অন্তরে বাসকারী পবিত্র আত্মা দেওয়া হয়।
 

পবিত্র আত্মা আমার জন্য বিস্ময়কর কিছু করে থাকেন
 
 অন্তরে বাসকারী পবিত্র আত্মা গ্রহণের পর, আমি একটি নুতন মন্ডলীতে সুন্দর সুসমাচার প্রচারের কাজ শুরু করি। পবিত্র আত্মা আমাকে সুন্দর সুসমাচারকে শক্তিশালীভাবে প্রচার করাতে সমর্থ হয়েছিলেন।
 এটা যে সময় হয়েছিল সেই সময় নিম্নলিখিত ঘটনাগুলি ঘটেছিল। আমি যে শহরে বাস করতাম সেখানে একজন দর্জি ছিলেন, যিনি একজন বিদেশী ক্রেতার সঙ্গে ব্যবসা করতেন। এই ব্যক্তি ছিলেন একজন ডিকন। তিনি কারও সঙ্গে ব্যবসা করতে একদা তিনি একটি স্থানীয় হোটেলে ছিলেন এবং তিনি সেখানে আমাদের পোষ্টার দেখতে পেয়েছিলেন। তিনি নিমন্ত্রন পত্র দ্বারা আকর্ষিত হলেন এবং আমার সঙ্গে যোগাযোগ করতে চেষ্টা করলেন। তিনি আমার সঙ্গে সাক্ষাত করলেন এবং বললেন তিনি দীর্ঘকাল যাবত পাপে জীবন যাপন করছেন। পাঁচ ঘন্টা জল ও আত্মার সুসমাচার উপদেশ দেওয়ার পরে তিনি চুড়ান্তভাবে পাপ ক্ষমার সত্য স্বীকার করলেন। তিনি নূতন জন্ম প্রাপ্ত হলেন এবং ঐ সময় অন্তরে বাসকারী পবিত্র আত্মা গ্রহণ করলেন।
 এখানে একটি অন্য কাহিনী আছে যা আমি অন্য গীর্জা ঘর দেখতে গেলে ঘটেছিল। আমি একটি বিস্ময়কর ও প্রশস্ত দালান দেখলাম। কিন্তু ঐ সময় আমাদের গীর্জা ঘরের মত এটাকে ভাড়া করতে আমার কাছে পর্যাপ্ত অর্থ ছিল না। আমার হিসাব মতে বড় ধরনের ঘাটতে থাকা সত্ত্বেও দালাল ভাড়া নেওয়া আমার পক্ষে অসম্ভব ছিল। যাহোক, পবিত্র আত্মা আমাকে বললেন “সবল ও সাহসী হও”। বিস্ময়করভাবে গীর্জা ঘরটি পেতে সমর্থ হলাম এবং পবিত্র আত্মার সাহায্যে তাঁর কাজকে ধন্যবাদ দিলাম। সেই সময় থেকে জল ও আত্মার সুন্দর সুসমাচার প্রচারে পবিত্র আত্মা আমাকে তৈরী করতে থাকলেন। পবিত্র আত্মা আমার অন্তরে আমার সঙ্গে এমনকি এই মুহূর্ত পর্যন্ত বাস করছেন, সুন্দর সুসমাচার সমস্ত লোকের কাছে প্রচার করতে আমাকে উৎসাহ দিচ্ছেন। আর আমি দেখতে পাই, যারা এই সুন্দর সুসমাচার শ্রবণ করে ও বিশ্বাস করে তারা অন্তরে বাসকারী পবিত্র আত্মা গ্রহণ করে।
আমি পবিত্র আত্মাকে ধন্যবাদ জানালাম, যিনি আমাকে এই সুন্দর সুসমাচার প্রচার করতে সমর্থ দিয়েছেন। আমি জ্ঞাত আছি যে, আমার সমস্ত জীবন কালে পবিত্র আত্মা যা কিছু আমার জন্য করেছেন তা লেখা অপর্যাপ্ত। আমার অন্তর থেকে মুক্তভাবে প্রবাহিত জীবন্ত জলেন ন্যায় পবিত্র আত্মা আমার সঙ্গে বাস করছে। যিনি আমাতে বাস করেন আমি তাঁকে ধন্যবাদ জানাই।
 

পবিত্র আত্মা মন্ডলী স্থাপন করেন যা জল ও আত্মার সুসমাচারের মাধ্যমে তাঁর সঙ্গে বেড়ায়।
 
একদা আমি সুন্দর সুসমাচার প্রচার করতে মরুভূমিতে গিয়েছিলাম। ঐ সময় ঈশ্বর আমাকে একটা ছোট শহরে নিয়ে গেলেন এবং ঈশ্বরের অন্বেষণ করছে এমন একটি ছোট দলের সঙ্গে আমার সাক্ষাত হল। ঈশ্বর তাদের কাছে সুসমাচার প্রচার করতে আমাকে চালিত করলেন, যার কারণ ছিল অন্তরে বাসকারী পবিত্র আত্মা। তারা মনোযোগ সহকারে শ্রবণের মাধ্যমে ও বিশ্বাসের দ্বারা পবিত্র আত্মা পেয়েছিল। পবিত্র আত্মা আমার সহ কাৰ্য্যকারী হওয়ার জন্য তাদেরকে চালিত করল এবং তাদের সঙ্গে তখন থেকে সমস্ত পৃথিবীতে সুন্দর সুসমাচার প্রচার করতে একত্র হলাম।
 ঐ সময় তারা একটি ছোট দল ছিল, অন্য কোন ধর্মীয় সম্প্রদায়ের মত ছিল না। তারা ঈশ্বরের বাক্য অনুসারে জীবন যাপন করতে আকাঙ্খা করত, কিন্তু তারা তাদের পাপের দাসত্বের কারণে ঈশ্বরের কাছে তাদের পাপের ক্ষমার জন্য উন্মত্তভাবে ক্রন্দন করত। পবিত্র আত্মা আমাকে এই দলের কাছে আনয়ন করলেন এবং এই সুন্দর সুসমাচার প্রচার করতে আমাকে উৎসাহিত করলেন। আমি দেখতে পারলাম যে, পবিত্র আত্মা তাদেরকে এবং আমাকে প্রত্যেককেই পরস্পর মিলিত হতে প্রস্তুত করলেন। লেবীয় পুস্তকে উৎসর্গীকরণ পদ্ধতিতে জল ও আত্মার সুন্দর সুসমাচার প্রচার করতে অনুপ্রাণিত করলেন এবং লোকেরা সুন্দর সুসমাচারের বাক্যের মধ্যে দিয়ে পবিত্র আত্মা গ্রহণ করতে থাকল।
 ঈশ্বর সুন্দর সুসমাচারের মধ্যে ঐ বিশ্বাসীদের নিয়ে একসঙ্গে পবিত্র আত্মার মন্ডলী প্রতিষ্ঠিত করলেন। পবিত্র আত্মা সুন্দর সুসমাচারের মধ্য দিয়ে তাদেরকে যীশুর শিষ্য নিয়োগ করলেন। এখন অনেক মেষ পবিত্র আত্মা গ্রহণ করছে ও মন্ডলীতে প্রবেশ করছে।
 পবিত্র আত্মা আমাকে মিশন স্কুল শুরু করতে পরিচালিত করছেন ও শিষ্যদের সংগঠিত করছেন। তিনি লোকদের কাছে ঈশ্বরের বাক্য প্রচারে আমাকে সাহায্য করছেন এবং তাদেরকে ঈশ্বরের কাৰ্য্যকারীরূপে সেবা ও বিশ্বাসের দ্বারা মেনে নিতে সাহায্য করছেন। তারা যেখানে যাচ্ছে সর্বত্র সুন্দর সুসমাচারের কাজ তিনি অনুমোদন করছেন, এবং ঈশ্বর তাদের মাধ্যমে তাঁর মন্ডলী স্থাপন করছেন। পবিত্র আত্মা তাঁর সেবকদের জল ও আত্মার সুসমাচার প্রচার করতে পরিচালিত করছেন। যারা পাপের ক্ষমা গ্রহণ করেছেন, পবিত্র আত্মা সেই ধার্মিকদের পরিচালিত করছেন, মন্ডলীতে সংযুক্ত করছেন এবং এই জগতে ধার্মিকদের জীবন যাপন করতে পবিত্র করছেন।
সুপ্রাচীন কাল থেকেই শয়তান লোকদের প্রতারিত করছে, এবং সে অবিরত তাই করতে থাকবে। শয়তান লোকদের বলবে যে, অনুতাপের প্রার্থনা, উপবাস অথবা হস্তাপনের মাধ্যমে পবিত্র আত্মা গ্রহণ করা যায়। এটা সত্য নয়। লোকেরা অনুতাপের প্রার্থনা অথবা হস্তাপনের মাধ্যমে পবিত্র আত্মা গ্রহণ করতে পারে না। তারা কেবল জল ও আত্মার সুসমাচারে বিশ্বাসের দ্বারা তাদের সমস্ত পাপের ক্ষমা পাওয়ার মধ্য দিয়েই পবিত্র আত্মা গ্রহণ করতে পারে, যা ঈশ্বর আমাদিগকে দিয়েছেন। এই হল অন্তরে বাসকারী পবিত্র আত্মা গ্রহণের সত্য। পবিত্র আত্মার জল ও আত্মা সুন্দর সুসমাচার প্রচারে যীশু খ্রীষ্টের সাহায্য করেন ও লোকদের অন্তরে বাসকারী পবিত্র আত্মা গ্রহণে সাহায্য করেন।
 

পবিত্র আমাদিগকে বিশ্বব্যাপী সাহিত্য সেবা প্রদানে পরিচালিত করছেন
 
পৌল যেমন তার পত্রে সুন্দর সুসমাচারের বিষয় লিখেছিলেন, জল ও আত্মার লিখিত সুন্দর সুসমাচার প্রচার ও বিস্তারে পবিত্র আত্মা আমার অন্তরে বাস করে আমার জন্য ফল উৎপন্ন করছেন। এই কারণে সুন্দর সুসমাচার অন্তর্ভুক্ত করে খ্রীষ্টিয় বই প্রকাশ করছি যা বিশ্বাসীদেরকে পবিত্র আত্মা গ্রহণে পরিচালিত করছে। প্রথমে আমরা মাত্র কয়েক পৃষ্ঠার ছোট পুস্তিকা দিয়ে শুরু করেছিলাম, কিন্তু লীঘ্রই আমাদের বইগুলি সুন্দর সুসমাচারে অন্তর্ভুক্ত করে পৃথিবীর সর্বত্র প্রচার করছি।
 পবিত্র আত্মা আমার মধ্যে বাস করে অধিক সংখ্যক লোককে বই পড়ে সুন্দর সুসমাচারে বিশ্বাসের দ্বারা তাদের পাপের ক্ষমা পেয়ে মন্ডলীতে প্রবেশ করতে পরিচালিত করছে। তাছাড়া, তিনি আমাদিগকে বিভিন্ন বিদেশী ভাষায় সুন্দর সুসমাচার প্রচার করতে পরিচালিত করছেন। তিনি যুক্তরাষ্ট্রসহ পৃথিবীর প্রায় ১৫০টি দেশে সুন্দর সুসমাচার প্রচার করতে পরিচালিত করছেন।
 পবিত্র আত্মা বিশ্ব মিশনের জন্য প্রার্থনা করতে মন্ডলীতে উৎসাহিত করছেন এবং বিভিন্ন ভাষায় সুন্দর সুসমাচার অনুবাদ করতে ও সাহিত্য সেবার মাধ্যমে তা প্রচার করতে আমাদিগকে পরিচালিত করছেন, যেন বিভিন্ন জাতির লোকেরা এটা শ্রবণ ও বিশ্বাস করতে পারে। অন্য দেশের নূতন শিষ্যদের সাথে এক সঙ্গে কাজ করতে এবং তাদের সাথে একসঙ্গে সুন্দর সুসমাচার প্রচার করতে পবিত্র আত্মা আমাকে পরিচালিত করছেন। আমি পবিত্র আত্মাকে ধন্যবাদ দিই। পবিত্র আত্মা রাশিয়াতে সুসমাচার প্রচার করতে আমাকে গভীর আগ্রহে পূর্ণ করেছেন। পবিত্র আত্মা প্রার্থনা করতে এবং সত্য অনুসন্ধানে রাশিয়ান সুসমাচার প্রচারকের সঙ্গে সাক্ষাত করতে এবং তাদের কাছে সুন্দর সুসমাচার প্রচার করতে সুযোগ দিয়েছিলেন, সেটা ছিল যখন তারা সুন্দর সুসমাচার প্রথম শুনেছিল। জল ও আত্মার সুন্দর সুসমাচার শ্রবণ ও বিশ্বাস করার পর তারা আমাদের মত পবিত্র আত্মা গ্রহণ করেছিলেন।
 তাদের মধ্যে একজন একজন ছিলেন মস্কোর জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন অধ্যাপক, যিনি জল ও আত্মার সুন্দর সুসমাচার শ্রবণ করার পর আমার কাছে এই স্বীকারোক্তি নিবেদন করেন।
 আমি ৬ বছর যাবৎ ঈশ্বরে বিশ্বাস করেছিলাম, কিন্তু বাস্তবিক আমি তাঁকে না বুঝে বিশ্বাস করেছিলাম। যাহোক, জল ও আত্মার সুন্দর সুসমাচার শ্রবণ করার পর আমার শক্তিশালী বিশ্বাস ছিল এবং আমার অন্তরে প্রশান্তি ও স্বস্তি পেলাম। আমি বাস্তবিক প্রভুকে ধন্যবাদ দেই। আমি তখন চিন্তা না করা পর্যন্ত আমি বিশ্বাসের সঠিক প্রণালীর মাধ্যমে ধর্মীয় জীবনে পরিচালিত হচ্ছিলাম। যীশুর রক্তের বিশ্বাসে আমার ধর্মীয় জীবন সামঞ্জস্যপূর্ণ হল, যিনি আমাদের পাপের জন্য মরেছেন। যাহোক, আমার কোন ধারনা ছিল না যে, ঈশ্বর আমার সমস্ত পাপ পরিস্কার করেছেন।
 আমি তখন নূতন জন্ম প্রাপ্ত পালকের সঙ্গে সাক্ষাত করলাম এবং ঈশ্বর আমাদিগকে যে সুন্দর সুসমাচার দিয়েছেন সে সম্পর্কে শুনলাম এবং শিখলাম যে, আমি তখনও একজন পাপী ছিলাম। আমি সুন্দর সুসমাচার সম্পর্কে ধার্মিকের অর্থ কি এই সম্পর্কে আরও বেশী অনুসন্ধান করতে চেষ্টা করলাম। আমি উপলব্দি করলাম যে, যখন তিনি বাপ্তাইজিত হলেন, তখন আমার সমস্ত পাপ যীশুতে স্থানান্তরিত হয়েছিল। এটা ছিল সুন্দর সুসমাচার। আমি উপলব্দি করলাম যে, কেবল আসল পাপ নয় কিন্তু আমার প্রতিদিনের পাপ এবং আমার সমস্ত ভবিষ্যত পাপ তাঁর বাপ্তিস্মের মাধ্যমে তাঁতে স্থানান্তরিত হয়েছেন। আমি এই সুসমাচারের সত্য শ্রবণ ও বিশ্বাস দ্বারা নূতন জন্মের মহা সুখ অর্জন করেছি।
 অনেক রাশিয়ান এই অধ্যাপকের সঙ্গে সংযুক্ত হয়ে জল ও আত্মা সুন্দর সুসমাচার শ্রবণ ও বিশ্বাস দ্বারা পবিত্র আত্মা গ্রহণ করেছেন। এখন পবিত্র আত্মার মন্ডলী সেখানে স্থাপিত হয়েছে, এবং অধিক সংখ্যক লোক পবিত্র আত্মার কাজের মাধ্যমে সুন্দর সুসমাচার বিশ্বাস করেছেন। ঈশ্বর এই বিষয়গুলি করেছিলেন, এবং সে কারণে আমি পবিত্র আত্মাকে বিশেষ ধন্যবাদ জানাই।
 পবিত্র আত্মা আমার মধ্যে বাস করছেন এবং আমাকে নূতন জন্ম প্রাপ্ত খ্রীষ্টিয়ান তৈরী করলেন, ঠিক যেমন জল ও আত্মার সুন্দর সুসমাচারে বিশ্বাস করেন। আর এখন আমি পৃথিবীতে সুন্দর সুসমাচার প্রচার করছি। তিনি আমাদের সুন্দর সুসমাচারের উপর বই অবিরতভাবে অনুবাদ করতে অনুমতি দিলেন, কেবল ইংরেজী নয়, কিন্তু পৃথিবীর সর্বত্র অন্যান্য ভাষাতেও তিনি আমাদিগকে জগতের। সর্বত্র সুন্দর সুসমাচার প্রচার করতে তৈরী করলেন। আমি পবিত্র আত্মাকে ধন্যবাদ দিই। আপনিও অন্তরে বাসকারী পবিত্র আত্মা গ্রহণ করতে পারেন। ঈশ্বর চান আপনার মধ্যেও অন্তরে বাসকারী পবিত্র আত্মা থাকুক।
 অনেক লোক তাঁর নামে ডেকে এবং ঈশ্বরের কাছে উন্মত্ত প্রার্থনা উৎসর্গ করার মাধ্যমে পবিত্র আত্মা গ্রহণ করতে চেষ্টা করছে। যাহোক জল ও আত্মার সুন্দর সুসমাচার ব্যাতিত পবিত্র আত্মা গ্রহণ করতে চেষ্টা করছে, যা যীশু আমাদিগকে দিয়েছেন, এটা ভুল। যে বলে কেহ জল ও আত্মার যীশুর সুন্দর সুসমাচার ব্যাতিত পবিত্র আত্মা গ্রহণ করা যায়, এটা ভ্রান্ত শিক্ষা।
 যীশুর শিষ্যগণ কি যীশু তাহাদিগেকে যে সুন্দর সুসমাচার দিয়েছিলেন তাহাতে বিশ্বাস ব্যাতিত পবিত্র আত্মা পেয়েছিলেন? না সম্পূর্ণভাবেই না। আপনার জানা উচিত যে, বর্তমানে পবিত্র আত্মা তাদের মধ্যে বাস করেন, যারা জল ও আত্মার সুন্দর সুসমাচার বিশ্বাস করেন এবং তাদের অন্তর থেকে পবিত্র আত্মার জীবন্ত জল প্রবাহিত হচ্ছে। এমনকি ঠিক এই মুহূর্তে, পবিত্র আত্মার জীবন্ত জল আমার অন্তর থেকে সুন্দর সুসমাচারের সঙ্গে এক সাথে প্রবাহিত হচ্ছে। আমি প্রভুর ধন্যবাদ করি।